1. admin@happinesstvbd.com : admin :
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ১০:২৪ অপরাহ্ন

হাসেম ফুড লিমিটেডে অগ্নিকান্ড ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে বিএনপির ২ গ্রুপের সংঘর্ষে আহত-১৫

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
  • ১৩ জন দেখেছেন

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে হাসেম ফুড লিমিটেড কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র একটি প্রতিনিধিদল।

ঘটনাস্থলে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে অবস্থান নেয়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গ সংঘঠনের দুই গ্রুপের মাঝে দুই দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ উভয় গ্রুপের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় গ্রুপের নেতাকর্মীদের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) দুপুরে উপজেলার কর্ণগোপ এলাকার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে ঘটে এ সংঘর্ষের ঘটনা। এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনায় তীব্র সমালোচনা করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, গত ৮ জুলাই বিকেলে হাসেম ফুড লিমিটেড কারখানার ৬তলা ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে এখন পর্যন্ত ৫২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার ৬ষ্ঠ দিনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির একটি প্রতিনিধিদল ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করতে আসেন।

বিএনপির স্থানীয় কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম, বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন ও বিএনপি নির্বাহী কমিটির প্রচার সম্পাদক সহিদউদ্দিন চৌধুরী এনি প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।

দুপুর প্রায় আড়াইটার দিকে প্রতিনিধিদল হাসেম ফুড লিমিটেডের মুল গেইটের সামনে এসে উপস্থিত হন। সেখানে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারসহ তার সমর্থকরা অবস্থান নেয়ার চেষ্টা করেন। এসময় বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ভুইয়া দিপুসহ তার সমর্থকরাও অবস্থান নেয়ার চেষ্টা করেন। অবস্থান নেয়াকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনেই উভয় গ্রুপের নেতাকর্মীরা হাতাহাতি ও বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। পরে কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপে শান্ত হয়। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ চলে যান।

চলে যাওয়ার পর হাসেম ফুড লিমিটেড কারখানার সামনে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে বিএনপির উভয় গ্রুপের নেতাকর্মীরা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। ইটপাটকেল ও সংঘর্ষে নিউজটোয়েন্টিফোর টিভির ক্যামেরাম্যান মাকসুদুল আলম তুষার, গ্লোবাল টেলির জাহাঙ্গীর মাহমুদ, বাংলাদেশ বুলেটিনের সাজেদুর রহমান, তারাব পৌর বিএনপির আহবায়ক নাসির উদ্দিন, ছাত্রদল নেতা মাসুম বিল্লাহ, পারেভজ, মামুনসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

এসময় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে চলাচলরত বিভিন্ন যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে উভয় গ্রুপের নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে পথচারীসহ এলাকাবাসীর মাঝে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় গ্রুপের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় আবারও সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।

স্থানীয় এলাকাবাসী অভিযোগ করে জানান, এখানে ভয়ানক একটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। যেখানে ৫২টি তাজা প্রাণ পরকালে চলে গেলো। সেখানের বিষয়ে এসে নিজেরা যে ঘটনা ঘটিয়েছে তা ন্যাক্কারজনক। যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়।
এ ব্যপারে বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ভুইয়া দিপু বলেন, হাসেম ফুড লিমিটেড কারখানার ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল বিএনপি প্রতিনিধিদল পরিদর্শণ করুক তা তৈমুর আলম খন্দকার চায়নি। যার ফলে এ বিশৃংখলার সৃষ্টি করিয়েছেন।

এ বিষয়ে জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, যারা ঘটনা ঘটিয়েছে, তারা দলের মধু খাইতে আইছে। তারাতো দলের জন্য কাজ করেনা বরং দলের বদনাম করে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরীর আরো নিউজ
© All rights reserved © 2019-happinesstvbd.com
Develper By : Porosh Network Ltd