1. admin@happinesstvbd.com : admin :
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৪:৪১ অপরাহ্ন

হেফাজত, নতুন কমিটিতেও রাজনৈতিক নেতাদের ছড়াছড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১
  • ৮ জন দেখেছেন

নানা কারণে আলোচিত-সমালোচিত সংগঠন হেফাজতে ইসলামের নবগঠিত কমিটিকে ‘নতুন বোতলে পুরাতন কমিটি’ বলে মন্তব্য করেছেন শাহ আহমদ শফীপন্থী হিসেবে পরিচিত সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মাইনুদ্দিন রুহি।

সোমবার (৭ জুন) সন্ধ্যায় হেফাজতের নতুন কমিটি গঠনের পর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি জাগো নিউজকে এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘হেফাজতে ইসলামের গঠিত কমিটি হচ্ছে নতুন বোতলে পুরাতন কমিটি। এটির মধ্যে ব্যতিক্রম কিছু নেই। এটি হেফাজতে ইসলামের কোনো কমিটি নয়, এটি হচ্ছে ফটিকছড়ি সমিতি। এই কমিটি কোনো কোনো রাজনৈতিক দলের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য করা হয়েছে।’

হেফাজতে ইসলামের কমিটি আগে থেকে আছে মন্তব্য করে মাইনুদ্দিন রুহি বলেন, ‘আল্লামা শাহ আহমদ শফী হুজুরের নেতৃত্বাধীন যে কমিটি ছিল, সেটি এখনও বিলুপ্ত হয়নি। এই কমিটি এখনও চলছে। এটি এখন পর্যন্ত হেফাজতের বৈধ কমিটি। নতুন কমিটিতে তারা হুজুরের ছেলে ইউসুফ মাদানিকে রেখেছেন। কিন্তু তিনি নিজেই চিঠি দিয়ে এই কমিটি থেকে পদত্যাগ করেছেন।’

নতুন করে আবার হেফাজতের আরেকটি কমিটি গঠন করা হবে কি-না জানতে চাইলে মাওলানা রুহি বলেন, ‘আগামী ২২ জুন ঢাকা প্রেস ক্লাবে শফী হুজুরের জীবন ও কর্মশীর্ষক আলোচনা সভা আছে। ওই সভায় বিস্তারিত সিদ্ধান্ত জানানো হবে। এরই মধ্যে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হবে।’

এদিকে, কমিটি গঠনের পর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে হেফাজতে ইসলামের নবগঠিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদ্রিস জাগো নিউজকে বলেন, ‘হেফাজতে ইসলামের নতুন করে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে গ্রেফতার নেতাকর্মীদের মুক্ত করা। তাছাড়া সার্বিক করণীয় নিয়ে শিগগিরই আমরা মিটিং করব। মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সামনের করণীয় ঠিক করা হবে। সব মিলিয়ে হেফাজতে ইসলাম নতুন করে সংগঠন গুছিয়ে কাজ শুরু করবে।’

এর আগে বেলা ১১টায় রাজধানীর খিলগাঁও মাখজানুল উলুম মাদরাসায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ৩৩ সদস্যবিশিষ্ট নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। জেলে থাকা ও রাজনৈতিক পরিচয়ধারী নেতাদের বাদ দেয়া হয়েছে নতুন কমিটিতে।

কমিটিতে জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির এবং নুরুল ইসলাম জিহাদীকে মহাসচিব হিসেবে বহাল রাখা হয়েছে। সেখানে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত আমির শাহ আহমদ শফীর বড় ছেলে মো. ইউসুফকে সহকারী মহাসচিব হিসেবে রাখা হয়েছে।

ঘোষিত কমিটিতে নায়েবে আমির পদে রয়েছেন ৯ জন। তারা হলেন মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, মাওলানা আবদুল হক, মাওলানা সালাহউদ্দীন নানুপুরী, অধ্যক্ষ মীযানুর রহমান চৌধুরী, মাওলানা মুহিব্বুল হক, মাওলানা ইয়াহইয়া, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, মাওলানা তাজুল ইসলাম ও মাওলানা মুফতি জসিমুদ্দীন।

যুগ্ম মহাসচিব পদে থাকা পাঁচজন হলেন- মাওলানা সাজেদুর রহমান, মাওলানা আব্দুল আউয়াল, মাওলানা লোকমান হাকীম, মাওলানা আনোয়ারুল করীম ও মাওলানা আইয়ুব বাবুনগরী। সহকারী মহাসচিব পদে রয়েছেন মাওলানা জহুরুল ইসলাম এবং ইউসুফ মাদানী।

সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন মাওলানা মীর ইদ্রিস, অর্থ সম্পাদক মাওলানা মুফতি মুহাম্মদ আলী, সহ-অর্থ সম্পাদক মুফতি হাবিবুর রহমান কাসেমী, প্রচার সম্পাদক মাওলানা মুহিউদ্দীন রব্বানী, সহ-প্রচার সম্পাদক মাওলানা জামাল উদ্দীন, দাওয়াবিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আবদুল কাইয়ুম সোবহানী, সহকারী দাওয়াবিষয়ক সম্পাদক মাওলানা ওমর ফারুক।

কমিটির বাকি আটজন সদস্য হলেন মাওলানা মো. বারাকুল্লাহ, মাওলানা ফয়জুল্লাহ, মাওলানা ফোরকানুল্লাহ খলিল, মাওলানা মোশতাক আহমদ, মাওলানা রশিদ আহমদ, মাওলানা আনাস, মাওলানা মাহমুদল হাসান, মাওলানা মাহমুদুল আলম।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, হেফাজতের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ১৫১ সদস্যবিশিষ্ট। ৩৩ সদস্যর এ নতুন কমিটি অন্যদের নিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারবে।

এছাড়া ভবিষ্যতে প্রত্যেক জেলা কমিটির সভাপতি পদাধিকার বলে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসেবে বিবেচিত হবেন এবং জেলা কমিটির সভাপতি ও সেক্রেটারি অরাজনৈতিক ব্যক্তি হতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীকে প্রধান করে ১৬ সদস্যের একটি উপদেষ্টা কমিটির ঘোষণা করা হয়। জুনায়েদ বাবুনগরী এবং মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী অসুস্থ থাকার কারণে এ সময় উপস্থিত হতে পারেননি বলে জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরীর আরো নিউজ
© All rights reserved © 2019-happinesstvbd.com
Develper By : Porosh Network Ltd