1. admin@happinesstvbd.com : admin :
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ১১:৪৫ অপরাহ্ন

তবে কি অর্থের বিনিময়ে অবৈধ দোকানকে বৈধতা দিত সাঈদ খোকন!

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৬৮ জন দেখেছেন

নিউজ ডেস্কঃ রাজধানী ঢাকার গুলিস্থানে বেশ সাজসজ্জিত ভাবে অবৈধ দোকান পার্ট গড়ে উঠেছে, চলাচলের রাস্তা যেন ছিল দোকানিদের দখলে। তবে পাঁচ থেকে দশ লাখ টাকার বিনিময়ে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেটের অবৈধ দোকানগুলোকে ডিএসসিসির সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন বৈধতা দেন এমনটাই অভিযোগ উঠেছে তার দিকে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র হিসেবে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস দায়িত্ব নেয়ার পরই রাজধানীর গুলিস্তানের ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২ এর নকশা বহির্ভূত ৯১১টি দোকান উচ্ছেদ করার ঘোষণা দেন। এ লক্ষ্যে ডিএসসিসির পাঁচ সদস্যের একটি কমিটিও করা হয়।

তবে ডিএসসিসির সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন একটি বেসরকারি টিভি নিউজকে জানিয়েছেন, এভাবে ঢালাওভাবে অভিযান পরিচালনা আইনসিদ্ধ নয়।

ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার আগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সাবেক মেয়র পুত্র সাঈদ খোকন। সাবেক এ মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে দায়িত্ব পালনকালে তিনি ফুলবাড়িয়া মার্কেটের নকশা বহির্ভূত এসব অবৈধ দোকানকে বৈধতা দেন।

মার্কেটের ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন প্রতিটি দোকানকে বৈধতা দিতে ৫ লাখ থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত নেয়।

ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা জানান, দোকানের বৈধতা পেতে সাঈদ খোকনের শেষ সময়ে দোকান প্রতি ৫ থেকে ১০ লাখ টাকা নিয়েছে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন। আবার অনেক ব্যবসায়ীর অভিযোগ, টাকা দেয়ার পরও সেসময় দোকানে বৈধতা পাননি।

এ বিষয়ে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন টেলিফোনে একটি বেসরকারি টিভি নিউজকে বলেন, ‘আদালতের নির্দেশনা ও সিটি কর্পোরেশনের সিদ্ধান্তেই টাকা নিয়ে বৈধতা ঘোষণা করা হয়েছিল অনেক দোকানকে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এখন ঢালাওভাবে অভিযান পরিচালনা ঠিক নয়। তবে, বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলছেন, ‘কারা টাকা নিয়েছে তা জানে না সিটি কর্পোরেশন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরীর আরো নিউজ
© All rights reserved © 2019-happinesstvbd.com
Develper By : Porosh Network Ltd