1. admin@happinesstvbd.com : admin :
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ১০:০৩ পূর্বাহ্ন

কিডনি কেটে নেয়ার অভিযোগ, ব্যবস্থা নিচ্ছে বিএসএমএমইউ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত : বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৭৪ জন দেখেছেন

নিউজ ডেস্কঃ একটির বদলে দু’টি কিডনি অপসারণে রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল। তদন্ত প্রতিবেদনে সুস্পষ্টভাবে অভিযুক্তদের তথ্য না থাকায় অসন্তোষ জানিয়েছে মানবাধিকার কমিশন। আর পরিবারের অভিযোগ, ২ বছর আগে এমন একটি ঘটনা ঘটিয়েও স্বাভাবিকভাবেই দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন অভিযুক্ত চিকিৎসকেরা  ।

দুই বছর আগের ঘটনা। হয়েছে তদন্ত, নির্দেশনা দিয়েছেন আদালত। তারপরও একটির বদলে দুইটি কিডনি অপসারণে রওশন আরার মৃত্যুর ঘটনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের অভিযুক্ত চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে নেওয়া হয়নি কোন ব্যবস্থা।

তদন্তের সবশেষ অবস্থা জানতে বুধবার আজ (২ ডিসেম্বর) সকাল ১১ টায় বিএসএমএইউ হাসপাতালে যায় মানববাধিকার কমিশনের তদন্ত দল। ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক করে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে। বৈঠক শেষে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুলফিকার আহমেদ জানান, প্রাথমিকভাবে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ৪ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

যদিও মানববাধিকার কমিশনের সদস্যরা বলছেন, ২ বছরেও মেডিকেল কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা না নেয়ার বিষয়টি দুঃখজনক। এমনকি মঙ্গলবার পর্যন্ত হাসপাতালে দায়িত্ব পালন করেছেন অভিযুক্তরা। এদিকে মৃতের স্বজনদের অভিযোগ, এক চোখা তদন্ত কমিটি অভিযুক্তদের পক্ষে প্রতিবেদন দিয়েছে।

২০১৮ সালে কিডনি সমস্যা নিয়ে অসুস্থ অবস্থায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন রওশন আরা। চিকিৎসকরা তাকে সুস্থ ক‌রে তোলার জন্য তার বাম কিড‌নি কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয়। ৫ সেপ্টেম্বর হয় অপারেশন। কিন্তু বাম কিড‌নির স‌ঙ্গে কে‌টে ফেলা হয় ডান কিড‌নিও।

এর কিছুদিন পর গুরুতর অসুস্থ হয়ে পরলে বঙ্গবন্ধ‌ু মে‌ডি‌কেল থে‌কে এক‌টি প্রাইভেট হাসপাত‌ালে ভ‌র্তি করা হ‌য়‌‌ রওশন আরা‌কে। সেখা‌নে পরীক্ষা ক‌রে দেখা যায়, তার দু‌টি কিড‌নিই নেই। এর দু’মাস পর তি‌নি মারা যান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরীর আরো নিউজ
© All rights reserved © 2019-happinesstvbd.com
Develper By : Porosh Network Ltd